Posts tagged ‘বাংলা সিনেমা’

June 10, 2017

ঢাকার সিনেমার ১১ ব্যতিক্রমী পোস্টার

মূল লেখার লিংক

প্রকৃত প্রস্তাবে চলচ্চিত্রের জন্য পোস্টার অপরিহার্য কোনো উপাদান নয়। কিন্তু বাস্তবতা হলো, পোস্টার ছাড়া চলচ্চিত্র এক রকম অসম্পূর্ণই থেকে যায়। পোস্টার কেবল চলচ্চিত্রের প্রচারণার উপকরণ হিসেবেই কাজ করে না, চলচ্চিত্রটির অস্তিত্বের প্রতিনিধিও হয়ে ওঠে সেটি। একটি ভালো পোস্টার যেমন একটি সুন্দর চলচ্চিত্রের প্রতিনিধিত্ব করে, সেই নিয়ম মেনেই খারাপ চলচ্চিত্রের পোস্টারও কুৎসিত-ই হয়।

read more »

Advertisements
November 10, 2013

পাঁচজন হুমায়ূন , একজন ফরীদি

মূল লেখার লিংক
হুমায়ূন ফরীদিকে নিয়ে হুমায়ূন আহমেদ একটা লেখা লিখেছিলেন। সেই লেখার শুরুর অংশে তিনি দৈনিক বাংলার সহ-সম্পাদক সালেহ চৌধুরীর উদ্ধৃতি দিয়ে লিখেছিলেন, তিনি আমার শহীদুল্লা হলের বাসায় উপস্থিত হয়ে বললেন, ‘‘বাংলাদেশে পাঁচজন হুমায়ূন আছে। দৈনিক বাংলায় এদের ছবি একসঙ্গে ছাপা হবে। আমি একটা ফিচার লিখব, নাম ‘পঞ্চ হুমায়ূন’।’’

আমি বললাম, “পাঁচজন কারা?”

সালেহ চৌধুরী বললেন, “রাজনীতিবিদ হুমায়ুন রশীদ চৌধুরী, দৈনিক বাংলার সম্পাদক আহমেদ হুমায়ূন, অধ্যাপক এবং কবি হুমায়ূন আজাদ, অভিনেতা হুমায়ূন ফরীদি এবং তুমি।’’

73740_585079694839412_395329513_n

read more »

May 3, 2013

জানা-অজানার সত্যজিৎ রায় : অনন্য প্রতিভার এক বরপুত্র

মূল লেখার লিংক
Untitled

সামান্য কিছু যন্ত্রপাতি এবং সাধারণ কয়েকজন অভিনেতা-অভিনেত্রী নিয়ে পরিচালক শুরু করলেন মুভিটির শ্যুটিং। কিছু কাজ করার পর শেষ হয়ে গেলো সব অর্থ। বাধ্য হয়ে স্ত্রীর গহণা বন্ধক দিয়ে এবং নিজের দামী বইপত্র বিক্রি করে পুনরায় শুরু করলেন শ্যুটিং। কিন্তু তাতেও শেষ হলো না কাজ। নতুন পরিচালকের পেছনে অর্থলগ্নি করতে রাজি নন কেউ। যাই হোক, অনেক কষ্টে পুনরায় অর্থ যোগাড় করে মুভিটি শেষমেষ সম্পন্ন করা গেলো।

read more »

August 16, 2012

বাংলা চলচ্চিত্রের তিন দশকের বাণিজ্যিক তিনটি ছবির রিভিউ

মূল লেখার লিংক
প্রিয় ব্লগার বন্ধুদের আজ একসাথে বাংলা চলচ্চিত্রের তিন দশকের তিন ধরনের গল্প নিয়ে মুল ধারার বাণিজ্যিক ছবির তিনটি সুপারহিট ছবির রিভিউ নিয়ে এলাম। এইখানে আমি তিন দশকের বাংলা চলচ্চিত্রের পরিবর্তন এর একটি উদারহন তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। তিনটি ছবির তিন পরিচালক ও কাহিনীকার ,শিল্প ও কলাকুশলী সবাই আমাদের বাংলা চলচ্চিত্রের মেধাবী ও কিংবদন্তী হয়ে আছেন। বর্তমান প্রজন্মের চোখে বাংলা বাণিজ্যিক ছায়াছবির যে ভুল ধারনা আছে আশাকরি সেটা এই পোস্টের মাধ্যমে কিছুটা হলেও ঘুচবে। বর্তমানে যারা ভালো ছবির কথা বলে তথাকথিত বাংলা সিনেম তৈরি করে বর্তমান প্রজন্মকে বিভ্রান্ত করছে এবং বাংলা ছবির ধরন সম্পর্কে ভুল ধারনা পোষণ করতে বাধ্য করছে আশাকরি এই পোস্টের মাধ্যমে সেই সকল ছবি দেখে প্রতারিত হয়ে ফেরা দর্শকরা ভবিষ্যতে সেই সকল তথাকথিত বাংলা সিনেম দেখা থেকে বিরত থাকবেন। আমরা চাই আমাদের চলচ্চিত্রের উন্নয়ন কিন্তু ভুল পথে ভুলভাবে ধাবিত হোক তা চাইনা।

read more »

February 24, 2012

আমার চলচ্চিত্র দর্শন-লালটিপ

বেশ কিছুদিন হইতেই দেশ ও জাতির চিন্তায় নিদ্রা আসিতেছিলো না।এই অধম খালি ফেসবুক আর ব্লগ তোলপাড় করিয়া ফেলিতেছে,অথচ দেশ ও জাতির উন্নয়নের জোয়ারে তাহার ভুমিকা কি?এরুপ চিন্তায় আচ্ছন্ন হইয়া ভাবিলাম কিছু একটা করা দরকার।তবে দূর্যোধন যেহেতু সাধারন কিছু করিয়া উন্নয়নের জোয়ারে ভাসিবেনা ,সুতরাং অসাধারন কিছু একখানা করার বাসনায় ভাবিলাম-সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত বাঙ্গালা চলচ্চিত্রের দর্শন করিয়া দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রাখি।

৫৫ টাকার টিকেটে কি আর অত অর্থনীতির চাকা সচল হয়? সুতরাং বসুন্ধরার প্রেক্ষাগৃহে যাইয়া ১৫০ টাকার টিকেট কিনিয়া স্বেচ্ছা-পোঙামারা খাইবার ব্যবস্থা করিলাম। পোঙামারা খাওয়া সুদৃঢ় করিবার নিমিত্তে সর্বভুক একখানা ছোটভাইকে খবর দিলাম।লাফাইতে লাফাইতে উহাকে লইয়া বসুন্ধরায় হাজির হইলাম।উহাকে বলিলাম,’কি ছবি দেখা যায় ?” ,একগাল হাসিয়া ছোটভাই বলিলো,”কুসুমের রান” । থতমত খাইয়া গেলাম,বলে কি? এরুপ অশ্লীল নামের ছবি বসুন্ধরার মতন সুশীল সমাজে?দেশটা রসাতলে গেলো বুঝি !মনের ভাব পড়িতে পারিয়া ছোটভাই বলিলো,”আজ্ঞে,লাল টিপ দেখিবো” ।

read more »

December 3, 2010

খোঁজ দ্যা সার্চ: খোঁজাখুঁজি’র এক কালোত্তীর্ণ মহাকাব্য!

আমাদের বাংলা সিনেমার ইতিহাসে মহাকাব্যের সংখ্যা সম্ভবত হাতে গোনা — বেদের মেয়ে জোছনা (নাকি জোৎস্না?), রূপভান, নবাব সিরাজুদ্দৌলা ও সোহরাব-রুস্তম ছাড়া স্মৃতি হাতড়ে আর কিছু বের করতে পারলাম না। তবে ডাইহার্ড ফ্যানদের দাবীর মুখে মাহমুদ কলি, ওয়াসিম কিংবা ইলিয়াস কাঞ্চনের একগাদা রাজা-বাদশাহ-জমিদার-প্রজা টাইপ সিনেমাগুলোকে গোনায় ধরলে অবশ্য অন্য কথা, গুনতে গিয়ে খেই হারিয়ে ফেলতে হবে। সেই সাথে যদি যুক্ত হয় কিংবদন্তী পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু’র নাম- তাহলে তো কথা নেই! সংখ্যা যে কোথায় গিয়ে ঠেকবে কে জানে! এ সব অবশ্য মহাকাব্যিক সিনেমার কথা। আমাদের ভাগ্য ভালো যে আমাদের এই সব মহাকাব্য গুনতে টুনতে হবেনা। কারণ আমাদের এই আলোচনা এসব মহাকাব্যিক বাংলা সিনেমা নিয়ে নয় বরং কালোত্তীর্ণ এক মহাকাব্য নিয়ে! আর এখনও পর্যন্ত বাংলা সিনেমার ইতিহাসে ‘কালোত্তীর্ণ মহাকাব্য’ কিন্তু একটিই নির্মিত হয়েছে, সেটা হল — “খোঁজ দ্যা সার্চ”!

read more »