ছবিতে বিশ্বের বিপজ্জনকতম ৫টি সড়ক

মূল লেখার লিংক
ছবিতে বিশ্বের বিপজ্জনকতম ৫টি সড়ক!
বিশ্বের বিপজ্জনকতম সড়কগুলোতে পা ফেলার আগে একবার ছবির দিকে তাকিয়েই দেখুন! যেকোনো ভৌতিক দৃশ্যের চাইতে কিছু কম শ্বাসরুদ্ধকর নয় এই পথগুলো! আর যদি রোমাঞ্চপ্রেমী হয়ে থাকেন, তাহলে যে আপনার জন্যই এসব পথ- বলাই বাহুল্য!

১. আটলান্টিক ওশান রোড

আটলান্টিক ওশান রোডের দৈর্ঘ্য ৮.৩ কিলোমিটার। বেশ কয়েকটি দ্বীপ নিয়ে নির্মিত এই সড়কটি আটটি সেতুকে সংযুক্ত করেছে। সমুদ্রের শক্তিশালী ঢেউ যখন এই সেতুগুলোর ওপর আছড়ে পড়ে, তখন সে দৃশ্য সত্যিই দেখবার মতো হয়। ভয়াবহ এই সেতু-সড়কটি যুক্তরাষ্ট্রের একটি সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য এবং বিখ্যাত পর্যটনকেন্দ্র।

২. সাউথ ইয়ুঙ্গাস রোড

বলিভিয়ার সাউথ ইয়ুঙ্গাস রোডের দৈর্ঘ্য ৪৩ মাইল বা ৬৯ কিলোমিটার। এটি ‘মৃত্যুর পথ’ হিসেবেই বেশি পরিচিত। হয়তো ভাবছেন, কেন কেউ নিজের প্রাণ বিপন্ন করে এই সড়কের ওপর দিয়ে কোথাও যাবেন। কিন্তু বাস্তবতা এই যে, আশপাশের কয়েকটি ছোট গ্রামের সাথে পরিবহণ ও যোগাযোগের এটাই একমাত্র পথ হওয়ায় সড়কটি ব্যবহার করা ছাড়া গ্রামবাসীদের কাছে আর কোনো বিকল্প নেই। প্রতি বছর সড়কটিতে ভয়াবহ সব দুর্ঘটনায় হাজার হাজার মানুষের প্রাণহানি হয়।

৩. ভিতিম রিভার ক্রসিং

ভিতিম রিভার ক্রসিং রোডটি সাইবেরিয়ার একটি নদী পারাপার সেতু, যার দৈর্ঘ্য প্রায় ছয়শ’ মিটার। সড়কটি যেমন সরু, তেমনই বিপজ্জনক। শীত ও বর্ষার সময় সেতুটির ওপর যারা যান, তাদের বুকের পাটা আছে বলেই যেতে পারেন।

৪. শিয়ারি রোড

ভারতের শিয়ারি থেকে ইশতিয়ারি পর্যন্ত সরু পার্বত্য সড়কটি শ্বাসরুদ্ধকর বললেও কম বলা হবে। একটি পাথুরে পাহাড়ি এলাকা কেটে তৈরি করা হয়েছে সড়কটি। বর্ষার সময় বৃষ্টি আর কাদামাটিতে যখন সড়কটি একদম পিচ্ছিল হয়ে থাকে, তখনই এই পথের ‘ভয়াবহ সৌন্দর্য’ উপলব্ধি করা সম্ভব!

৫. হিমালয়ান রোড

কোনো বিপজ্জনক খেলায় অংশ নেয়ার চাইতে মোটেই কম বিপজ্জনক নয় হিমালয়ের কোলের ওপর দিয়ে পাহাড়ের পাশ থেকে এঁকেবেঁকে, উঁচুনিচু হয়ে বয়ে যাওয়া এই সড়কটি। শীতকালে এই পুরো পথটি তুষারে ছেয়ে থাকে এবং ঝর্ণার পানি এসে ওপর থেকে পড়তে থাকে সড়কটির ওপর। এছাড়াও ইট আর পাথরে ভর্তি সড়কটি ভীষণ সরুও বটে।

এসব পথের ভয়াবহতা না দেখে যদি সৌন্দর্যেই মুগ্ধ হন, তাহলে তো কথাই নেই। তবে মনে রাখবেন- ভীষণ রকমের সতর্ক না হলে এই পথ দিয়ে যাত্রাই হতে পারে অন্তিম যাত্রা!

Advertisements

লেখাটির ব্যাপারে আপনার মন্তব্য এখানে জানাতে পারেন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: