স্বপ্নের দেশ আয়ারল্যান্ডে দুই সপ্তাহ

পাহাড়, সমুদ্র, বিশাল সবুজ মাঠ আর ঘোড়ার খামার, সব মিলিয়ে চার দিকে আটলান্টিক মহা সাগরে ঘেরা ছবির মত সুন্দর এক দেশ। অনেকটা রাজকীয় দেশ বলা চলে। মনে পড়ে গেল কবি মতিউর রাহমান মল্লিক ভাইয়ের লেখা গানঃ
তোমার সৃষ্টি যদি হয় এত সুন্দর
না জানি তাহলে তুমি কত সুন্দর
কত সুন্দর …….

আল্লাহ্‌ আমাদের এই প্রিয় ভাইটিকে জান্নাতুল ফিরদাউস দান করুন।

ইংল্যান্ডে আসার পর সবার আগে আয়ারল্যান্ডে যাবার কথা থাকলেও সময় স্বল্পতা, লেখাপড়া আর কাজ এই তিন জিনিসের জন্যে হয়ে উঠেনি। আমার বড় চাচার ফেম্যালির সবাই আয়ারল্যান্ডে থাকেন। বার বার বলার পরেও আসলে যাওয়া হয়নি। এখন বুজতে পারছি। কি ভুলটাই করতাম, যদি এখানে না আসতাম!

ভাইয়া আগেই প্লেনের টিকেট করে রেখেছিল। কাজেই London Gatwick থেকে easy jet প্লেনে সোজা নরদান আয়ারল্যান্ডের রাজধানী Belfast এয়ারপোর্টে গিয়ে নামলাম। সূর্যি মামা তখন ঘুমুতে গেছেন। এখনকার রাস্তাঘাট অনেক ফাঁকা। ইংল্যান্ড থেকে এখানে মানুষের সংখ্যা একটু কমই হবে মনে হল। বাসায় আসতে মাত্র ২০ মিনিটের মত লাগলো।

পরদিন ভাইয়া, আমি আর ভাতজা সবাই মিলে ঘুরতে বের হলাম। ইংল্যান্ড থেকে এখনাকার মানুষ গুলোকে আরও বেশি পোলাইট মনে হল। বিকালে সমুদ্র দেখে চাচার রেস্টুরেন্টে গিয়ে পরিচিত এক কলিগকে দেখে অবাক হয়ে গেলাম। মেডি নামের ইতালিয়ান এই মেয়েটি এক সময় ইংল্যান্ডে আমার সাথে একটি ইংলিশ pub-এ কাজ করত। যাক অনেক দিন পর দেখা হয়ে ভালই লাগল।

বুজতেই পারলামনা কি ভাবে দুটি সাপ্তাহ কেঠে গেল। এবার ফিরে আসার পালা। প্লেনটা যখন ভূমি ছেড়ে আকাশে উড়ল খুব খারাপ লাগছিল। এত অল্প সময়ে কোন জায়গার প্রেমে পড়িনি আগে কখনও! জানালার দিকে অনেকক্ষণ তাকিয়ে থাকলাম। পাশে বসা জার্মান এক ভদ্র লোক জিজ্ঞেস করলেন, Are you ok? আমি শুধু মাথা নাড়লাম।


এ রকম একটি বাসা যদি আমারও থাকত!


দুষ্ট গাংচিল গুলোর বিশ্রাম নেয়া।


আমারও যদি এমন ডানা থাকত!


এ প্রবাল গুলো সেন্ট-মারটিনের কথা মনে করিয়ে দিল!


উপর থেকে সৈকতের মনোরম দৃশ্য।


সার্ফিংটা বেশ ভালই পারে ভাতিজা আমার!


ওমা! এ যে পাহাড়ের গায়ে সুড়ঙ্গ পথ!


হাজার হাজার স্পিড বোট


দেখে যেন মনে হয় ছিনি উহারে! কি ব্যাপার চিনতে পেরেছেন তো?


সূর্যি মামা ঘুমুতে যাওয়া মানে আরেকটি দিনের সমাপ্তি!


পালাবি কোথায়?


আকাশের বুকে মাথা রেখে পাহাড় ঘুমায় ঐ!


ওমা! ভাইয়া এত সুন্দর ঘোড়া দৌড়াতে পারে আগে জানা ছিলনা তো!!


ফুল দেখে মন জুড়ালো!


এত সুন্দর কারুকাজ সৃষ্টি কর্তা ছাড়া আর কে পারে বল!


আকাশে ডানা মেলে দাও!


উনি যাচ্ছেন নীড়ে ফিরে..


মেডির তৈরি করা স্টারটার টির ছবি না দিলে ছবি গুলো পূর্ণতা পাবেনা!

.

.

.

মূল লেখার লিংক

http://prothom-aloblog.com/posts/62/154293

Advertisements

লেখাটির ব্যাপারে আপনার মন্তব্য এখানে জানাতে পারেন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

%d bloggers like this: